এলডিপিকে মন্ত্রীর প্রস্তাব দিয়েছিল আ’লীগ?

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ বলেছেন, একটি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল হিসেবে নিজস্ব কিছু মতামত থাকলেও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-এলডিপি ২০ দলীয় জোটে আছে।

২০১২ সালে ১৮ দলীয় জোট গঠনের পর থেকে এলডিপি বর্তমান সরকারের অনেক লোভনীয় প্রস্তাবকে উপেক্ষা করে ২০ দলীয় জোটের শরিক হিসেবে রয়েছে। আগামীতে সরকার পতনের আন্দোলনেও থাকবে।

মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর উত্তরায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

সাবেক প্রতিমন্ত্রী রেদোয়ান আহমেদ বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনে মন্ত্রীসহ বিভিন্ন অফার থাকলেও এলডিপি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেনি। এলডিপি সেদিন জোট ত্যাগ করলে ২০ দলীয় জোট ক্ষতিগ্রস্ত হতো।

সরকারবিরোধী আন্দোলন ও খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে সর্বদা বিএনপির পাশে ছিল এলডিপি। ২০১৮ সালের নির্বাচনে সরকারের পক্ষ থেকে অনেক লোভনীয় প্রস্তাব থাকলেও আমরা তা গ্রহণ করেনি। দুঃসময়ে আমরা বিএনপির পাশে থেকেছি। ভবিষ্যতেও থাকবো।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালে ২০ দলীয় জোটকে উপেক্ষা করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করায় তখন আমাদের দ্বিমত থাকলেও বৃহত্তর ঐক্যর স্বার্থে এলডিপি বিএনপির পাশে থেকেছে। নিশ্চিত পরাজয় জেনেও প্রহসনের সেই নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। তবুও বিএনপিকে ছেড়ে যায়নি।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি, তারেক রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় এলডিপি বিএনপির সঙ্গে একমত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *